রবি ও বাংলালিংককে ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস বন্ধের নির্দেশ - Jashore Tribune

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Monday, December 21, 2020

রবি ও বাংলালিংককে ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস বন্ধের নির্দেশ

 


পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত রবি ও বাংলালিংককে টেলিকম ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস (টি-ভ্যাস) বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। অপারেটর দু’টিকে পাঠানো আলাদা চিঠিতে এ সংক্রান্ত সেবা বন্ধের কথা বলা হয়েছে।

রবিবার অপারেটর দু’টিকে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, টি-ভ্যাস নিয়ে প্রতিষ্ঠান দুইটির বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। তদন্ত চলাকালে এ ধরনের সেবা আর দেয়া যাবে না। অপারেটর দু’টিও তাদের এ ধরনের সেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে। কনটেন্ট নির্মাতাদের এ ব্যাপারে অপারেটর দু’টি চিঠিও দিয়েছে।

এর আগে, অনুমতি ছাড়াই গ্রাহকের সেবা চালু করে টাকা কেটে নেয়ার বিষয়ে মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা ও বাংলালিংকের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছিল বিটিআরসি। একইসঙ্গে তখনো অপারেটর দু’টিকে টেলিকম ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস (টি-ভ্যাস) বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। গেলো ১০ নভেম্বর অপারেটর দু’টিকে এ সংক্রান্ত চিঠি দিয়েছিল বিটিআরসি। নতুন করে আবার একই সেবা বন্ধ রাখার চিঠি দেয়া হয়েছে।

অপারেটর দু’টিকে আগের পাঠানো পৃথক চিঠিতে বলা হয়েছিল, গ্রাহকের কাছ থেকে দুই বার সম্মতি নিয়ে টি-ভ্যাস সেবা চালু করার বিধি থাকলেও লক্ষ্য করা যাচ্ছে গ্রাহকের অজান্তেই তার মোবাইলে সেবাটি চালু হয়ে থাকে এবং গ্রাহকের ব্যালেন্স থেকে টাকা কেটে নেয়া হয়। কনটেন্ট প্রোভাইডার এবং বাংলালিংক ও রবি গ্রাহকের অজান্তে তার মোবাইল বিভিন্ন টি-ভ্যাস চালু করার মাধ্যমে গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ করছে বলে প্রাথমিক প্রমাণ পেয়েছে বিটিআরসি।


চিঠিতে বলা হয়েছিল, টি-ভ্যাস গ্রাহকের অধিকাংশই সমাজের নিম্ন আয়ের, শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী যারা শহরতলী বা গ্রামাঞ্চলে বসবাস করেন। বাংলালিংক ও রবির সরাসরি সহযোগিতা ছাড়া এইসব গ্রাহকের তালিকা কনটেন্ট প্রোভাইডারদের পক্ষে হস্তগত করা সম্ভব নয়। এসব টিভ্যাসের সার্ভিস ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম বাংলালিংক ও রবির নিয়ন্ত্রণাধীন।

বাংলালিংক ও রবির নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে গ্রাহকের অজান্তে তার মোবাইল ফোনের সার্ভিস অ্যাক্টিভেট করে মোবাইল থেকে টাকা নেয়ার ফলে বাংলালিংক ও রবি টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন-২০০১, সুস্পষ্ট লঙ্ঘন করেছে মর্মে প্রতীয়মান হয়।

এদিকে, ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস (ভ্যাস) প্রোভাইডার কর্তৃক গ্রাহকের পকেট কাটা সেবা বন্ধের দাবি জানিয়ে আসছিল বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনও। গ্রাহকদের সঙ্গে সঙ্গে দ্রুত এই সেবার বন্ধের দাবি ছিল এই সংগঠনেরও।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad