করোনাকালে যশোর জিলা স্কুল ও সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি লটারিতে - Jashore Tribune

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, December 23, 2020

করোনাকালে যশোর জিলা স্কুল ও সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি লটারিতে

 


মেধার লড়াইয়ে নয়; করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবছর যশোরের সেরা দুই সরকারি স্কুলে শিক্ষার্থী ভর্তি অনুষ্ঠিত হচ্ছে লটারির মাধ্যমে। শহরের জিলা স্কুল ও সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে এই ধরণের ভর্তি পদ্ধতি এবারই প্রথম। এছাড়া সরকারি স্কুলের পাশাপাশি বেসরকারি স্কুলের ভর্তি প্রক্রিয়াও নতুন এই নীতিমালার আলোকে অনুষ্ঠিত হবে। তাই সব স্কুলের ভর্তির কার্যক্রমই এবার লটারির মাধ্যমেই সম্পন্ন হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে ভর্তি পদ্ধতিতে এরকম পরিবর্তন এনেছে সরকার।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এএসএম আব্দুল খালেক জানান, যশোরের সরকারি- বেসরকারি স্কুলে এবার লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা তারা পেয়েছেন। আর সেই নির্দেশনার আলোকে ভর্তি কার্যক্রম চলমান রয়েছে।  

জানা গেছে, সরকারি স্কুলে ভর্তি ২০২০’র অনলাইন কার্যক্রম ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। আগামী ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তির আবেদন চলবে। ৩০ ডিসেম্বর লটারির মাধ্যমে ফলাফল প্রকাশ হবে। দেশের সব সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লটারির মাধ্যমে ২০২১ সালের শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এর জন্য ভর্তি সংক্রান্ত কোন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। এছাড়া বিদ্যালয়গুলোকে তিনটি গুচ্ছ বা গ্রুপ (এ, বি এবং সি) করে ভর্তির কাজটি করা হবে। আবেদনের সময় একজন শিক্ষার্থী একটি গুচ্ছের পাঁচটি বিদ্যালয়ে ভর্তি পছন্দক্রম দিতে পারবে। এরপর লটারির মাধ্যমে একটি বিদ্যালয় নির্বাচন করা হবে।

যশোর জিলা স্কুল ও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সূত্র জানায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুটিতে লটারির মাধ্যমে ভর্তির জন্য অনলাইন আবেদন চলছে। স্কুল দুটির প্রতিটির তৃতীয় শ্রেণিতে ২৪০ ও ষষ্ঠ শ্রেণিতে ২৪ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তি নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রভাতী শাখায় তৃতীয় শ্রেণিতে ১২০ জন ও দিবা শাখায় ১২০ জন করে ভর্তি করা হবে। স্কুল দুটির ষষ্ঠ শ্রেণির প্রভাতী ও দিবা শাখায় ১২ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তি নেওয়া হবে। জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক একেএম গোলাম আযম জানান, ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এছাড়া ভর্তির ফলাফলও অনলাইনেই প্রকাশ হবে। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে পরিবর্তিত পদ্ধতিতে এবার ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

শিক্ষা বিভাগ সূত্র জানায়, সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়ে চলতি ডিসেম্বরে বেশ কয়েকটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউসি) ১১ ডিসেম্বর সরকারি মাধ্যমিক স্কুলের ভর্তি সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করে। মাউশি’র ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২১ শিক্ষা বর্ষে স্কুলে ভর্তির জন্য আবেদন শুধুমাত্র অনলাইনে করা যাবে। অনলাইনে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে ১৫ ডিসেম্বর সকাল ১০ টা থেকে। আর আবেদন গ্রহণের শেষ সময় ২৭ ডিসেম্বর বিকাল ৫টা। ঠিক এর পরদিন বেসরকারি স্কুলে লটারির মাধ্যমে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে শিক্ষা অধিদপ্তর। এছাড়া গত ১৪ ডিসেম্বর শিক্ষা অধিদপ্তরের আরেকটি বিজ্ঞপ্তিতে বেসরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদনপত্র পূরণ ও ভর্তির নিয়মকানুন উল্লেখ করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র আরও জানায়, সরকারি সব স্কুলের লটারি অনুষ্ঠিত হবে ঢাকায়। সেখান থেকে লটারির ফলাফল স্ব-স্ব স্কুলে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। তবে বেসরকারি স্কুলগুলোর লটারি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুসরণ করে লটারির প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ভর্তি কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কমিটি গঠন করে লটারির তারিখ নির্ধারণ করতে হবে। এক্ষেত্রে নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে লটারি অনুষ্ঠান করতে হবে। এছাড়া নির্দেশনায় করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় জনসমাগম এড়ানোর জন্য লটারি ফেসবুক লাইভে প্রচারসহ আরো বেশ কয়েকটি নির্দেশনা রয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad