বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচন : আওয়ালীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ - Jashore Tribune

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, November 17, 2020

বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচন : আওয়ালীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ

 


বাঘারপাড়ায় উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ালীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০/১২ জন আহত হয়েছেন। ১৭ নভেম্বর রাত  নয়টায় দিকে উপজেলার ইন্দ্রা বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের বাঘারপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন আবদুর রব (৪৫), শরিফুল ইসলাম (৪০) ও ফেরদৌস (৩০), রবিউল ইসলাম (৫০), শুকুর আলী (৩৫), এবং বাহারুল ইসলাম। তাদের প্রত্থমে বাঘারপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তবে  আবদুর রব ও রবিউল ইসলামে আঘাত গুরুতর হওয়ায়  পরে তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে স্থানান্তরর করা হয়। আবদুর রব ও রবিউল ইসলাম মাথা ও মুখমন্ডলে আঘাত পেয়েছেন।অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের যশোরে রেফার করা হয়েছে। জানান, বাঘারপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার নাসিম রেজা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,  গতকাল রাত নয়টার দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিলু পাটোয়ারী নির্বাচনী প্রচারের জন্য নারিকেলবাড়িয়া থেকে ইন্দ্রা বাজারে এসে  তার কর্মী সমর্থকদের সাথে কথা বলছিলেন । তখন নৌকা প্রতীকের সমর্থক তরিকুল ইসলাম দিলু পাটোয়ারির সাথে বিতর্কে  জড়িয়ে পড়েন ।

এক পর্যায়ে নৌকার সমর্থকরা দিলু পাটোয়ারীকে আটকে রাখার চেষ্টা করলে  দিলুর সমর্থকরা তাকে উদ্ধার করতে আসেন। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায় । এতে উভয় পক্ষের ১০/১২ জন আহত হন। তাদের  বাঘারপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেনেয়া হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের  চিকিৎসক নাসিম রেজা জানান,  আহতদের মধ্যে আব্দুর রব ও রবিউল ইসলাম মাথায় আঘাত পেয়েছেন । তাদের অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে।

প্রার্থী দিলু পাটোয়ারী জানান, তিনি নারিকেলবাড়িয়া থেকে ইন্দ্রা বাজারে আসলে নৌকা  প্রতীকের সমর্থকরা তার সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েন এবং মারমুখি আচরণ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে তারা আমাকে আটকে রাখলে আমার সমর্থকরা আমাকে উদ্ধার করতে আসে। তখন দুপক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষ বেধে যায়।

তবে নৌকা  প্রতীকের প্রার্থী ভিক্টোরিয়া পারভীন সাথীর দেবর জামদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম টুটুল বলেন, দিলু পাটোয়ারীর সমর্থকরা পরিকল্পিতভাবে তাদের ওপর হামলা করেছে। এ ঘটনায় মামলা করবেন।

বাঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  সৈয়দ আল মামুন জানান, দুপক্ষের সংঘর্ষে ৭/৮ জন আহত হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। মামলা করা হলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, ১০ ডিসেম্বর বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজল হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলে পদটি শূন্য হয়।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad