যশোর পুলিশের অভিযানে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোর চক্রের ০৮ সদস্য গ্রেফতার, যন্ত্রপাতি উদ্ধার - Jashore Tribune

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Saturday, November 7, 2020

যশোর পুলিশের অভিযানে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোর চক্রের ০৮ সদস্য গ্রেফতার, যন্ত্রপাতি উদ্ধার

 


যশোর-খুলাঞ্চলের  ইজিবাইক চোর সিন্ডিকেটের প্রধানসহ ৮ সদস্য আটক হয়েছে। শুক্রবার রাতে তাদেরকে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আটক করা হয়।শনিবার দুপুরে যশোর জেলা পুলিশের এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

আটককৃতরা হলো যশোর সদর উপজেলার নূরপুর দক্ষিণপাড়ার জামাল গাজীর ছেলে রবিউল ইসলাম গাজী, আমবটতলার আব্দুল আজিজের ছেলে রাজু, যশোর শহরের বেজপাড়া এলাকার ইয়ার আলী মোল্লার ছেলে শাহাদৎ, মরহুম মিজান শেখের ছেলে আনারুল ইসলাম, শহরতলীর ধর্মতলা হ্যাচারি পাড়ার জাকির সরদারের ছেলে শাহিন, মণিরামপুর উপজেলার দোনার গ্রামের আশরাফ আলী বিশশ্বাসের ছেলে সোহেল রানা, খুলনার  দিঘলিয়া উপজেলার হাজিগ্রামের বাবুল মোল্লার ছেলে রাজু মোল্লা এবং নগরীর হরিণটানার কৈয়া বাজার এলাকার  মরহুম ইসমাইল হাওলাদারের ছেলে সুমন হাওলাদার।
  পুলিশ তাদের কাছ থেকে  ছিনতাইকৃত ইজিবাইক, ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত মোবাইল ও বিভিন্ন যন্ত্রাংশও উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

সংবাদ সম্মেলনে যশোরের পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে নানা কৌশলে ইজিবাইক চুরি ও ছিনতাই করে আসছে একটি চক্র। সর্বশেষ গত ২ নভেম্বর জেলার সদর থানার বাগডাঙ্গা গ্রামের নূর ইসলামের গ্যারেজ ভেঙ্গে ২টি ইজিবাইক চুরি হয়।  এরপর  কলিম বিশ্বাসস নামে এক ইজিবাইক চালক ৫ অক্টোবর কোতোয়ালী থানায় মামলা করেন। মামলায় কাউকে আসামী করা হয়নি। পরবর্তীতে মামলাটি  ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। 


ডিবির ওসি সোমেন দাশের নেতৃত্বে  পুলিশ ৬ নভেম্বর বিকেলে যশোর শহরের পালবাড়ি এলাকা থেকে ঐ চক্রের এক সদস্যকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তিতে যশোর সদরের নূরপুর থেকে একজন, মণিরামপুরের রাজগঞ্জ থেকে একজন এবং খুলনার হরিণটানার কৈয়া বাজার থেকে চোর চক্রের প্রধান সুমনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে খুলনার হরিণটানা ও সোনাডাঙ্গা থেকে ৮টি ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়। যশোর সদর উপজেলার সরদার বাগডাঙ্গা গ্রামের গ্যারেজ থেকে চুরি যাওয়া দুটি ইজিবাইক তাঁর মধ্যে রয়েছে।
পুলিশ সুপার জানান, অন্য চোরদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad